বুধবার , মে ১৮ ২০২২

মনোয়ার-সাজু’র সমমনা ২৭ জনের প্রযোজক বান্ধব ইস্তেহার ঘোষণা।

আসন্ন টেলিপ্যাব নির্বাচন উপলক্ষে মনোয়ার পাঠান এবং সাজু মুনতাসির সমমনা ২৭ জন প্রার্থী এবং ভোটারদের এক মিলন মেলা হয়ে গেল রাজধানীর ট্রাস্ট মিলনায়তনে ১৩ মার্চ সন্ধ্যায়। এই আয়োজনে উপস্থিত ছিলেন টেলিভিশন, চলচ্চিত্র এবং শোবিজ ইন্ডাস্ট্রির অনেক পরিচিত এবং প্রিয় মুখ। টেলিপ্যাব নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে আগামী ১৯ মার্চ। এই নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেন মোট ৫৫ জন প্রার্থী। প্যানেলভুক্ত নির্বাচন না হলেও একজোট হয়ে এখানেই মনোয়ার পাঠান সহ সমমনা ২৭ জন একযোগে একটি নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণা করেন।

ইস্তেহার ঘোষণা অনুষ্ঠানে সভাপতি পদপ্রার্থী মনোয়ার পাঠান,সাধারণ সম্পাদক পদপ্রার্থী সাজু মুনতাসির সহ সমমনা প্রার্থীগন


নানা আয়োজনের এক পর্যায়ে সভাপতি পদপ্রার্থী মনোয়ার হোসেন পাঠান সবার উদ্দেশ্যে পড়ে শোনান তাদের নির্বাচনী ইশতেহার। সংক্ষিপ্তভাবে তারা যে কথাটি মূলত বলার চেষ্টা করেন সেটি হচ্ছে তারা প্রযোজকদের মিথ্যা আশ্বাস দিতে চান না কথার ফুলঝুড়ি ঝরাতে চান না এবং অলীক স্বপ্নও দেখাতে চান না। তারা ততটুকুই বলতে চাই যতটুকু আগামী দুই বছরে বাস্তবায়নযোগ্য। এই নির্বাচনী ইশতেহারেও সমমনা ২৭ জনের শ্লোগান ছিল আমি না, আমরা।
তাদের ঘোষিত ইশতেহারে অন্যতম বিষয় ছিল টেলিপ্যাবকে ‘আমি’ থেকে বের করে ‘আমরা’ তে পরিণত করা। তারা চান টেলিপ্যাব হবে সবার যেখানে সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক এবং একজন সাধারণ সদস্যের অধিকার এবং সম্মান সমান হবে এক এবং অভিন্ন।


উল্লেখযোগ্য ঘোষণা গুলোর মধ্যে রয়েছে টেলিপ্যাবকে তার সম্মান এবং অবস্থানের দিক থেকে বাংলাদেশের টেলিভিশন ইন্ডাস্ট্রির প্রধান সংগঠন হিসেবে প্রতিষ্ঠা করা প্রযোজকদের অধিকার এবং সম্মান ফিরিয়ে আনা এবং বাস্তবায়ন করা টেলিপ্যাব অ্যাওয়ার্ড চালু করা যেটি হবে টেলিভিশন এবং ডিজিটাল মাধ্যমের বিভিন্ন ক্ষেত্রে ভাল কাজের স্বীকৃতি। প্রতিবছর আয়োজন করে টেলিভিশন এবং ডিজিটাল মাধ্যমে কাজের স্বীকৃতি দেয়া হবে এবং সেই কাজগুলোকেই স্বীকৃতি দেয়া হবে যে কাজগুলো টেলিপ্যাবের সদস্যরা প্রযোজনা করেছেন। সরকার যেন জাতীয় টেলিভিশন পুরস্কার প্রবর্তন করেন, সরকারের সঙ্গে আলোচনা সাপেক্ষে সেটি বাস্তবায়ন করতে চান তারা।


ইশতেহারের এরকম অনেকগুলো পয়েন্ট নিয়ে বেশ গোছালো উপস্থাপনা দিতে দেখা গেল মনোয়ার পাঠান এবং সাজু মুনতাসিরের সমমনা ২৭ জনকে ইশতেহারেও তাদের ওই কথাটির বাস্তবায়ন দেখা গেছে যেখানে তারা বারবার বলতে চেয়েছেন, প্রযোজকদের অলীক স্বপ্ন দেখাবেন না, ততটুকুই বলবেন যতটুকু বাস্তবায়ন সম্ভব। মনোয়ার পাঠান এবং সাজু মুনতাসিরের সমমনা ২৭ জন বিশ্বাস করেন, যে ইশতেহার কিংবা নির্বাচনী অঙ্গীকার তারা আজ প্রকাশ করলেন সেটি অবশ্যই আগামী দুই বছরের মধ্যে বাস্তবায়ন সম্ভব।

প্রতিবেদকঃ তানভীর তপু

About ডেস্ক রিপোর্ট

আরোও দেখুন

নেটওয়ার্ক অব ইয়ং নীলফামারীয়ান-এর সভাপতি হলেন রাফি।।।

নেটওয়ার্ক অব ইয়ং নীলফামারীয়ানের নীলফামারী সদর শাখার সভাপতি হয়েছেন রাইহান রাফি এবং সাধারণ সম্পাদক রাকিবুল …

২ comments

  1. Utterly composed content material, appreciate it for selective information. “The last time I saw him he was walking down Lover’s Lane holding his own hand.” by Fred Allen.

  2. I am now not certain where you are getting your information, but great topic. I needs to spend a while finding out much more or understanding more. Thank you for magnificent info I used to be searching for this information for my mission.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *