ঢাকা ০১:২১ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

গাইবান্ধায় সংবাদ প্রকাশে ৩ সাংবাদিকের বিরুদ্ধে মামলা

নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ১০:৫০:৪৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৬ নভেম্বর ২০২২ ১০০ বার পড়া হয়েছে
আজকের জার্নাল অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

গাইবান্ধা প্রতিনিধিঃ  সংবাদ প্রকাশের জের ধরে গাইবান্ধায় তিন সাংবাদিকের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা দায়ের করেছেন গাইবান্ধা জেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আতাউর রহমান আতা।

বুধবার দুপুরে পুলিশ তদন্তে আসলে বিষয়টি জানতে পারেন সাংবাদিকরা। সম্প্রতি সময়ে জেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান বাদি হয়ে তাদের বিরুদ্ধে মানহানি মামলা করেন। এর আগে তিনি জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান থাকাকালীন জেলা পরিষদের দুনীর্তি আর অনিয়মের অভিযোগ এনে ওই তিন সাংবাদিক নিজ নিজ গণমাধ্যমে একটি খবর প্রকাশ করেন। খবর প্রকাশের জের ধরে সম্প্রতি আদালতে হাজির হয়ে ওই তিন সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে মানহানি মামলা দায়ের করেন তিনি। মাছরাঙা টেলিভিশনের জেলা প্রতিনিধি সিদ্দিক আলম দয়াল, দৈনিক বাংলাদেশ সমাচার পত্রিকার জেলা প্রতিনিধি রবিন সেন ও আনন্দ টিভির জেলা প্রতিনিধি মিলন খন্দকারের নাম মামলা উল্লেখ করেন।

এ মামলার সাংবাদিক সংগঠন ও সাংবাদিক নেতারা তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেন। তারা সেখানে উদ্দেশ্য প্রণোদিত ও ভ্রান্ত তথ্য দিয়ে মিথ্যা হয়রানি করার জন্যই মামলা করা হয়েছে বলে উল্লেখ করা হয়। দুর্নীতিবাজ আতাউর রহমানের শাস্তির দাবি জানান সাংবাদিক নেতারা।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

গাইবান্ধায় সংবাদ প্রকাশে ৩ সাংবাদিকের বিরুদ্ধে মামলা

আপডেট সময় : ১০:৫০:৪৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৬ নভেম্বর ২০২২

গাইবান্ধা প্রতিনিধিঃ  সংবাদ প্রকাশের জের ধরে গাইবান্ধায় তিন সাংবাদিকের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা দায়ের করেছেন গাইবান্ধা জেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আতাউর রহমান আতা।

বুধবার দুপুরে পুলিশ তদন্তে আসলে বিষয়টি জানতে পারেন সাংবাদিকরা। সম্প্রতি সময়ে জেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান বাদি হয়ে তাদের বিরুদ্ধে মানহানি মামলা করেন। এর আগে তিনি জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান থাকাকালীন জেলা পরিষদের দুনীর্তি আর অনিয়মের অভিযোগ এনে ওই তিন সাংবাদিক নিজ নিজ গণমাধ্যমে একটি খবর প্রকাশ করেন। খবর প্রকাশের জের ধরে সম্প্রতি আদালতে হাজির হয়ে ওই তিন সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে মানহানি মামলা দায়ের করেন তিনি। মাছরাঙা টেলিভিশনের জেলা প্রতিনিধি সিদ্দিক আলম দয়াল, দৈনিক বাংলাদেশ সমাচার পত্রিকার জেলা প্রতিনিধি রবিন সেন ও আনন্দ টিভির জেলা প্রতিনিধি মিলন খন্দকারের নাম মামলা উল্লেখ করেন।

এ মামলার সাংবাদিক সংগঠন ও সাংবাদিক নেতারা তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেন। তারা সেখানে উদ্দেশ্য প্রণোদিত ও ভ্রান্ত তথ্য দিয়ে মিথ্যা হয়রানি করার জন্যই মামলা করা হয়েছে বলে উল্লেখ করা হয়। দুর্নীতিবাজ আতাউর রহমানের শাস্তির দাবি জানান সাংবাদিক নেতারা।