ঢাকা ০২:১০ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

পীরগাছায় খাদ্য বান্ধব কর্মসূচি ডিলারদের বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে

নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০৭:৩৩:৪৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১৬৬ বার পড়া হয়েছে
আজকের জার্নাল অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি
মোঃ রফিকুল ইসলাম লাভলু, পীরগাছা (রংপুর) প্রতিনিধি: রংপুরের পীরগাছায় খাদ্য বান্ধব কর্মসূচির ১৫ টাকা কেজির ৩০ কেজি চাল বিতরণে অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে ।
গত শনিবার উপজেলার ইটাকুমারী ইউনিয়নের দামুরচাকলা বাজার ও কালীগঞ্জ বাজারে খাদ্য বান্ধব কর্মসূচির ১৫ টাকা কেজি চাল বিতরণের সময় ৩০ কেজি চাল দেয়ার নিয়ম থাকলেও সুবিধাভোগীদের বিতরণ করেন ২৫ /২৬ কেজি করে। আবার ও ৩০ কেজি চালের দাম ৪৫০ টাকা হলেও ডিলাররা নিচ্ছে ৪৭০ টাকা করে। এমন অভিযোগের খবর পেলে ঘটনা স্থানে ছুটে আসেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার শেখ শামসুল আরেফীন অভিযোগের সত্যতা মিলেছে  খাদ্য বান্ধব চালের ডিলার জহুরুল ইসলামের অতিরিক্ত টাকা নেয়ার অভিযোগ ও ডিলার মিন্টু মিয়ার বস্তাপ্রতি ওজন কম দেয়ায় দুটি ডিলারের চাল বিতরণ বন্ধ করে দেয় হয়।
স্থানীয় সুবিধাভোগী রাজু মিয়া, খাজির মিয়া ও নুরুল ইসলাম অভিযোগ করেন,  দামুর চাকলা বাজারের ডিলার জহুরুল ইসলাম তালিকায় সুবিধাভোগী ৫৫৮ জন তিনি প্রতিজনের কাছ থেকে অতিরিক্ত ২০ টাকা করে মোট ১১ হাজার ১শ ৬০ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে বলে জানান।
অপরদিকে কালীগঞ্জ বাজারে সুবিধাভোগী মনসুরা বেগম, এনামুল হক ও খয়বার আলী অভিযোগ করেন, খাদ্য বান্ধব চালেরর ডিলার মিন্টু মিয়া চাল বিতরণের বস্তাপ্রতি ৩০কেজির চালের পরিবর্তে ২৫-২৬ কেজি করে চাল বিতরণ করছেন।
এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার শেখ শামসুল আরেফীন জানান, মিন্টু মিয়া ও জহুরুল ইসলামের চাল বিতরণে অনিয়মের অভিযোগ পেয়ে চাল বিতরণ বন্ধ করে রেখেছি। তবে যদি লিখিত অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

পীরগাছায় খাদ্য বান্ধব কর্মসূচি ডিলারদের বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে

আপডেট সময় : ০৭:৩৩:৪৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২
মোঃ রফিকুল ইসলাম লাভলু, পীরগাছা (রংপুর) প্রতিনিধি: রংপুরের পীরগাছায় খাদ্য বান্ধব কর্মসূচির ১৫ টাকা কেজির ৩০ কেজি চাল বিতরণে অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে ।
গত শনিবার উপজেলার ইটাকুমারী ইউনিয়নের দামুরচাকলা বাজার ও কালীগঞ্জ বাজারে খাদ্য বান্ধব কর্মসূচির ১৫ টাকা কেজি চাল বিতরণের সময় ৩০ কেজি চাল দেয়ার নিয়ম থাকলেও সুবিধাভোগীদের বিতরণ করেন ২৫ /২৬ কেজি করে। আবার ও ৩০ কেজি চালের দাম ৪৫০ টাকা হলেও ডিলাররা নিচ্ছে ৪৭০ টাকা করে। এমন অভিযোগের খবর পেলে ঘটনা স্থানে ছুটে আসেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার শেখ শামসুল আরেফীন অভিযোগের সত্যতা মিলেছে  খাদ্য বান্ধব চালের ডিলার জহুরুল ইসলামের অতিরিক্ত টাকা নেয়ার অভিযোগ ও ডিলার মিন্টু মিয়ার বস্তাপ্রতি ওজন কম দেয়ায় দুটি ডিলারের চাল বিতরণ বন্ধ করে দেয় হয়।
স্থানীয় সুবিধাভোগী রাজু মিয়া, খাজির মিয়া ও নুরুল ইসলাম অভিযোগ করেন,  দামুর চাকলা বাজারের ডিলার জহুরুল ইসলাম তালিকায় সুবিধাভোগী ৫৫৮ জন তিনি প্রতিজনের কাছ থেকে অতিরিক্ত ২০ টাকা করে মোট ১১ হাজার ১শ ৬০ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে বলে জানান।
অপরদিকে কালীগঞ্জ বাজারে সুবিধাভোগী মনসুরা বেগম, এনামুল হক ও খয়বার আলী অভিযোগ করেন, খাদ্য বান্ধব চালেরর ডিলার মিন্টু মিয়া চাল বিতরণের বস্তাপ্রতি ৩০কেজির চালের পরিবর্তে ২৫-২৬ কেজি করে চাল বিতরণ করছেন।
এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার শেখ শামসুল আরেফীন জানান, মিন্টু মিয়া ও জহুরুল ইসলামের চাল বিতরণে অনিয়মের অভিযোগ পেয়ে চাল বিতরণ বন্ধ করে রেখেছি। তবে যদি লিখিত অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।