ঢাকা ০৬:০৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৪ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

মানিকগঞ্জ জাদুঘর ও বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার দাবিতে সমাবেশ

নিজস্ব প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : ০৩:০৫:৪৫ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৭ মে ২০২২ ১৯৪ বার পড়া হয়েছে
আজকের জার্নাল অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

সাহিদ: মানিকগঞ্জ যাদুঘর ও বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে মানিকগঞ্জ সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক পরিষদের আয়োজনে সুধী সমাবেশে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শুক্রবার(২৭ মে) সকাল দশটা মানিকগঞ্জ পৌরসভার পশ্চিম বান্দুটিয়া এলাকার রহিমুন্নেছা এনায়েত ফাউন্ডেশনে এই সমাবেশে অনুষ্ঠিত হয়।

সংগঠনের সভাপতি মোঃ আজহারুল ইসলামের সভাপতিত্বে বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক সিনিয়র অর্থ সচিব মাহবুব আহমেদ, মানিকগঞ্জ সাহিত্য ও সংস্কৃতি পরিষদের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক সচিব সুশান্ত কুমার সাহা, জাতীয় জনসংখ্যা গবেষণা ও প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটের (নিপোর্ট) মহাপরিচালক সুশান্ত কুমার সাহা, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক নাজমা খান মসলিশ, মওলানা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি খলিলুর রহমান, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আব্দুল মান্নান খান, মানিকগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি গোলাম ছারোয়ার ছানুসহ জেলার বিশিষ্ট জনেরা বক্তব্য রাখেন।

এসময় আলোচকরা বলেন, মানিকগঞ্জ শত মানিকের জন্ম ভিটা। মানিকগঞ্জের রয়েছে গৌরবোজ্জ্বল ইতিহাস। আমরা এই ইতিহাস ও সংস্কৃতি একই ছাতার নিচে ফুটিয়ে তুলতে চাই। এই উদ্দেশ্যেই আমরা মানিকগঞ্জে স্মৃতি জাদুঘর তৈরীর পরিকল্পনা করি। ইতোমধ্যে আমাদের কাজ শুরু হয়েছে। তরুণ প্রজন্মের সামনে মানিকগঞ্জের ইতিহাস এবং সংস্কৃতি তুলে ধরাটাই হয়ে যথাকবে আমাদের সাফল্য।

সকল আনুষ্ঠানিকতা শেষ করে দ্রুত উদ্বোধন করা হবে মানিকগঞ্জ জাদুঘর। ওপার বাংলার প্রখ্যাত অর্থনীতিবিদ প্রথম বাঙালি নোবেল বিজয়ী অমর্ত্য সেন জাদুঘরের উদ্বোধন করবেন বলে মানিকগঞ্জ সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক পরিষদের পক্ষ থেকে জানানো হয়।

এসময় বক্তারা মানিকগঞ্জ জাদুঘর গড়ার পাশাপাশি জেলায় একটি উন্নতমানের পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের দাবি জানান। তাঁরা বলেন, উচ্চমাধ্যমিক শেষে প্রতিবছর হাজার-হাজার শিক্ষার্থীকে জেলার বাহিরে যেয়ে অধ্যায়ন করতে হয়। এটি কেবল জেলাতে ভালো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান না থাকার কারণেই। শিক্ষা ক্ষেত্রে ব্যক্তিগত উদ্যোগ নিয়েও কেউ এগিয়ে আসেনি। আগামী প্রজন্মের কথা চিন্তা করে আমাদের এই দাবি বাস্তবায়নের জন্য কাজ করা উচিত।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

মানিকগঞ্জ জাদুঘর ও বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার দাবিতে সমাবেশ

আপডেট সময় : ০৩:০৫:৪৫ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৭ মে ২০২২

সাহিদ: মানিকগঞ্জ যাদুঘর ও বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে মানিকগঞ্জ সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক পরিষদের আয়োজনে সুধী সমাবেশে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শুক্রবার(২৭ মে) সকাল দশটা মানিকগঞ্জ পৌরসভার পশ্চিম বান্দুটিয়া এলাকার রহিমুন্নেছা এনায়েত ফাউন্ডেশনে এই সমাবেশে অনুষ্ঠিত হয়।

সংগঠনের সভাপতি মোঃ আজহারুল ইসলামের সভাপতিত্বে বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক সিনিয়র অর্থ সচিব মাহবুব আহমেদ, মানিকগঞ্জ সাহিত্য ও সংস্কৃতি পরিষদের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক সচিব সুশান্ত কুমার সাহা, জাতীয় জনসংখ্যা গবেষণা ও প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটের (নিপোর্ট) মহাপরিচালক সুশান্ত কুমার সাহা, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক নাজমা খান মসলিশ, মওলানা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি খলিলুর রহমান, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আব্দুল মান্নান খান, মানিকগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি গোলাম ছারোয়ার ছানুসহ জেলার বিশিষ্ট জনেরা বক্তব্য রাখেন।

এসময় আলোচকরা বলেন, মানিকগঞ্জ শত মানিকের জন্ম ভিটা। মানিকগঞ্জের রয়েছে গৌরবোজ্জ্বল ইতিহাস। আমরা এই ইতিহাস ও সংস্কৃতি একই ছাতার নিচে ফুটিয়ে তুলতে চাই। এই উদ্দেশ্যেই আমরা মানিকগঞ্জে স্মৃতি জাদুঘর তৈরীর পরিকল্পনা করি। ইতোমধ্যে আমাদের কাজ শুরু হয়েছে। তরুণ প্রজন্মের সামনে মানিকগঞ্জের ইতিহাস এবং সংস্কৃতি তুলে ধরাটাই হয়ে যথাকবে আমাদের সাফল্য।

সকল আনুষ্ঠানিকতা শেষ করে দ্রুত উদ্বোধন করা হবে মানিকগঞ্জ জাদুঘর। ওপার বাংলার প্রখ্যাত অর্থনীতিবিদ প্রথম বাঙালি নোবেল বিজয়ী অমর্ত্য সেন জাদুঘরের উদ্বোধন করবেন বলে মানিকগঞ্জ সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক পরিষদের পক্ষ থেকে জানানো হয়।

এসময় বক্তারা মানিকগঞ্জ জাদুঘর গড়ার পাশাপাশি জেলায় একটি উন্নতমানের পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের দাবি জানান। তাঁরা বলেন, উচ্চমাধ্যমিক শেষে প্রতিবছর হাজার-হাজার শিক্ষার্থীকে জেলার বাহিরে যেয়ে অধ্যায়ন করতে হয়। এটি কেবল জেলাতে ভালো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান না থাকার কারণেই। শিক্ষা ক্ষেত্রে ব্যক্তিগত উদ্যোগ নিয়েও কেউ এগিয়ে আসেনি। আগামী প্রজন্মের কথা চিন্তা করে আমাদের এই দাবি বাস্তবায়নের জন্য কাজ করা উচিত।