ঢাকা ০১:০০ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২৩, ১৪ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

সুন্দরগঞ্জে আপন দুই ভাতিজা কে এসিড নিক্ষেপ করেন চাচা

নিজস্ব প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : ০৬:৩৫:৩৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২ ২৫৬ বার পড়া হয়েছে
আজকের জার্নাল অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

সুুন্দরগঞ্জ (গাইবান্ধা) প্রতিরিধিঃ গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে জমি-জমা নিয়ে বিরোধের জেরে আসাদ মিয়া (২০) ও আশিকুর রহমান তনু (১৫) নামে দুই সহোদরকে এসিড নিক্ষেপ করে দগ্ধ করার অভিযোগ উঠেছে আপন চাচা সুমন মিয়ার বিরুদ্ধে। দগ্ধ ২ জন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

 

 

বৃহস্পতিবার (২৯ সেপ্টেম্বর) ভোরে উপজেলার সর্বানন্দ ইউনিয়নের উত্তর সাহাবাজ গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। অভিযুক্ত সুমন মিয়া ওই গ্রামের বাবর আলী মন্ডলের ছেলে। দগ্ধ আসাদ মিয়া চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের অনার্স ১ম বর্ষ ও আশিকুর রহমান তনু সুন্দরগঞ্জ আব্দুল মজিদ সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী। তারা একই গ্রামের ফিরোজ মিয়ার ছেলে।

জানা যায়, উপজেলার উত্তর সাহাবাজ গ্রামের বাবর আলী মন্ডলের ছেলে ফিরোজ মিয়ার সাথে তার আপন ভাই সুমন মিয়ার দীর্ঘদিন থেকে পৈত্রিক জমি-জমা নিয়ে বিরোধ চলে আসছে। এরই একপর্যায়ে আনুমানিক ভোর ৩ টার দিকে সুমন মিয়া তার আপন দুই ভাতিজাকে এসিড নিক্ষেপ করেন। এতে আসাদ ও তনু মিয়া দগ্ধ হন। পরে তাদেরকে দগ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করে স্বজনরা রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করান। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আসাদ মিয়ার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে ঢাকা বার্ন ইউনিটে রেফার্ড করেন।

এঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার বলেন, এসিডে দগ্ধ দুই ভাই চিকিৎসাধীন রয়েছে। আসাদ মিয়ার অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।

সুন্দরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সরকার ইফতেখারুল মোকাদ্দেম বলেন, ‘বিষয়টি শুনেছি। তবে এখনো কেউ অভিযোগ দেয়নি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

সুন্দরগঞ্জে আপন দুই ভাতিজা কে এসিড নিক্ষেপ করেন চাচা

আপডেট সময় : ০৬:৩৫:৩৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২

সুুন্দরগঞ্জ (গাইবান্ধা) প্রতিরিধিঃ গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে জমি-জমা নিয়ে বিরোধের জেরে আসাদ মিয়া (২০) ও আশিকুর রহমান তনু (১৫) নামে দুই সহোদরকে এসিড নিক্ষেপ করে দগ্ধ করার অভিযোগ উঠেছে আপন চাচা সুমন মিয়ার বিরুদ্ধে। দগ্ধ ২ জন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

 

 

বৃহস্পতিবার (২৯ সেপ্টেম্বর) ভোরে উপজেলার সর্বানন্দ ইউনিয়নের উত্তর সাহাবাজ গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। অভিযুক্ত সুমন মিয়া ওই গ্রামের বাবর আলী মন্ডলের ছেলে। দগ্ধ আসাদ মিয়া চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের অনার্স ১ম বর্ষ ও আশিকুর রহমান তনু সুন্দরগঞ্জ আব্দুল মজিদ সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী। তারা একই গ্রামের ফিরোজ মিয়ার ছেলে।

জানা যায়, উপজেলার উত্তর সাহাবাজ গ্রামের বাবর আলী মন্ডলের ছেলে ফিরোজ মিয়ার সাথে তার আপন ভাই সুমন মিয়ার দীর্ঘদিন থেকে পৈত্রিক জমি-জমা নিয়ে বিরোধ চলে আসছে। এরই একপর্যায়ে আনুমানিক ভোর ৩ টার দিকে সুমন মিয়া তার আপন দুই ভাতিজাকে এসিড নিক্ষেপ করেন। এতে আসাদ ও তনু মিয়া দগ্ধ হন। পরে তাদেরকে দগ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করে স্বজনরা রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করান। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আসাদ মিয়ার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে ঢাকা বার্ন ইউনিটে রেফার্ড করেন।

এঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার বলেন, এসিডে দগ্ধ দুই ভাই চিকিৎসাধীন রয়েছে। আসাদ মিয়ার অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।

সুন্দরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সরকার ইফতেখারুল মোকাদ্দেম বলেন, ‘বিষয়টি শুনেছি। তবে এখনো কেউ অভিযোগ দেয়নি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।