ঢাকা ০৩:০৪ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

সুুন্দরগঞ্জ পৌরসভায় কর্মচারীকে মারপিটের অভিযোগ উঠেছে কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে

নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০৫:৩০:১৭ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১১ নভেম্বর ২০২২ ১৬৭ বার পড়া হয়েছে
আজকের জার্নাল অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি
সুুন্দরগঞ্জ (গাইবান্ধা) প্রতিনিধিঃ গাইবান্ধার সুুন্দরগঞ্জ পৌরসভায় কর্মচারীকে মারপিটের অভিযোগ উঠেছে কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে। গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে থানা অভিযোগ করেন কর্মচারী মোকলেছুর রহমান।
অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার অফিস চালাকালিন মোকলেছুর রহমান অত্র পৌরসভার ক্রয় সংক্রান্ত স্থায়ী কমিটির সভার কার্য-বিবরণী লিখে তা পৌরসভার (ভারপ্রাপ্ত) নির্বাহী কর্মকর্তার  কক্ষে সংশোধনী দেখার জন্য নিয়ে যাই। সেই কক্ষে আগে থেকে কয়েকজন ক্রয় কমিটির সদস্য বসে ছিলেন। সেখানে ক্রয় কমিটি’র সদস্য কার্যবিবরণী ফাইলের ছবি তুলতে চাইলে তা বাঁধা প্রদান করলে পৌর কর্মচারী মোকলেছুর রহমানকে পৌর নির্বাহী কর্মকতার কক্ষে দরজা বন্ধ করে মারপিট শুরু করেন ৬ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলার লাবলু মিয়া। পৌর কার্যালয়ে চিৎকারের শব্দ পেয়ে পৌর কার্যালয়ে থাকা কর্মচারীরা ছুটে এসে মোকলেছুর কে উদ্ধার করেন। এরপর পৌর কর্মচারী মোকলেছুর রহমান বাদী হয়ে কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে থানা অভিযোগ দায়ের করেন।
অভিযুক্ত কাউন্সিলর লাবলু মিয়া জানান, আমি নিজেই একজন ক্রয় কমিটি’র সদস্য  আমি তার কাছে ফাইল টি দেখতে চাই আমার প্রতি ক্ষিপ্ত হয়ে আমার সামনে ফাইল টি ছিড়ে ফেলেন পরে আমি  রাগান্বিত হয়ে তাকে আঘাত করার উদ্দেশ্যে চেয়ার তুলি তবে তাকে কোনো আঘাত করা হয়নি।
পৌর মেয়র আব্দুর রশিদ সরকার ডাবলু জানান, বিষয়টি আমি শুনেছি এটা একটা ভূল বোঝাবুঝি আগামী মিটিংগে বসে মিমাংসা করে দিবো।
থানা অফিসার ইনচার্জ, সরকার ইফতেখারুল মোকাদেম জানান, পৌরসভায় এক কর্মচারী মারপিটের অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত চলছে তদন্তসম্পকে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

সুুন্দরগঞ্জ পৌরসভায় কর্মচারীকে মারপিটের অভিযোগ উঠেছে কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে

আপডেট সময় : ০৫:৩০:১৭ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১১ নভেম্বর ২০২২
সুুন্দরগঞ্জ (গাইবান্ধা) প্রতিনিধিঃ গাইবান্ধার সুুন্দরগঞ্জ পৌরসভায় কর্মচারীকে মারপিটের অভিযোগ উঠেছে কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে। গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে থানা অভিযোগ করেন কর্মচারী মোকলেছুর রহমান।
অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার অফিস চালাকালিন মোকলেছুর রহমান অত্র পৌরসভার ক্রয় সংক্রান্ত স্থায়ী কমিটির সভার কার্য-বিবরণী লিখে তা পৌরসভার (ভারপ্রাপ্ত) নির্বাহী কর্মকর্তার  কক্ষে সংশোধনী দেখার জন্য নিয়ে যাই। সেই কক্ষে আগে থেকে কয়েকজন ক্রয় কমিটির সদস্য বসে ছিলেন। সেখানে ক্রয় কমিটি’র সদস্য কার্যবিবরণী ফাইলের ছবি তুলতে চাইলে তা বাঁধা প্রদান করলে পৌর কর্মচারী মোকলেছুর রহমানকে পৌর নির্বাহী কর্মকতার কক্ষে দরজা বন্ধ করে মারপিট শুরু করেন ৬ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলার লাবলু মিয়া। পৌর কার্যালয়ে চিৎকারের শব্দ পেয়ে পৌর কার্যালয়ে থাকা কর্মচারীরা ছুটে এসে মোকলেছুর কে উদ্ধার করেন। এরপর পৌর কর্মচারী মোকলেছুর রহমান বাদী হয়ে কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে থানা অভিযোগ দায়ের করেন।
অভিযুক্ত কাউন্সিলর লাবলু মিয়া জানান, আমি নিজেই একজন ক্রয় কমিটি’র সদস্য  আমি তার কাছে ফাইল টি দেখতে চাই আমার প্রতি ক্ষিপ্ত হয়ে আমার সামনে ফাইল টি ছিড়ে ফেলেন পরে আমি  রাগান্বিত হয়ে তাকে আঘাত করার উদ্দেশ্যে চেয়ার তুলি তবে তাকে কোনো আঘাত করা হয়নি।
পৌর মেয়র আব্দুর রশিদ সরকার ডাবলু জানান, বিষয়টি আমি শুনেছি এটা একটা ভূল বোঝাবুঝি আগামী মিটিংগে বসে মিমাংসা করে দিবো।
থানা অফিসার ইনচার্জ, সরকার ইফতেখারুল মোকাদেম জানান, পৌরসভায় এক কর্মচারী মারপিটের অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত চলছে তদন্তসম্পকে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে