ঢাকা ০২:৪৮ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

পীরগাছায় নটাবাড়ী দ্বিমূখী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জাহাঙ্গীর কবিরের দুর্নীতির বিরুদ্ধে ফের তদন্ত

নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০৫:৫৭:৪৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ৩০ অক্টোবর ২০২২ ২৭৯ বার পড়া হয়েছে
আজকের জার্নাল অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

মোঃ রফিকুল ইসলাম লাভলু,পীরগাছা (রংপুর) প্রতিনিধিঃ রংপুরের পীরগাছায় নটাবাড়ী দ্বিমূখী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জাহাঙ্গীর কবিরের দুর্নীতির বিরুদ্ধে ফের তদন্ত শুরু। রোববার দুপুরে উপজেলা একাডেমিক সুপারভাইজার ফারুকুজ্জামান ডাকুয়া ওই স্কুলে গিয়ে প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগের প্রেক্ষিতে তদন্ত শুরু করেন।

এ বিষয়ে গত ১৭ অক্টোবর অভিভাবক সদস্য আফজাল হোসেন প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে ওই স্কুলের তিনজন চুতর্থ শ্রেণির কর্মচারীর এমপিওভূক্ত স্থগিতকরণ এবং ইমরান হোসেন নামে একজন তার আপন শ্বশুর তালিকাভূক্ত রাজাকারকে বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি বানানো সংক্রান্ত রংপুর জেলা শিক্ষা অফিসার ও ইউএনও বরাবরে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। তাদের অভিযোগের ভিত্তিতে প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে রোববার ফের তদন্ত শুরু করেন উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস।

 

এর আগে নটাবাড়ী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের অনিয়মের তদন্তভার উপজেলা নির্বাহী অফিসার উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা আব্দুস ছালামকে দেন। তিনি অভিযোগকারী ও এলাকাবাসীর কোন বক্তব্য না নিয়ে প্রধান শিক্ষক ও তার লোকজনের বক্তব্য প্রতিবেদনে উল্লেখ করেছেন বলে জানান এলাকাবাসী।

 

অভিযোগকারী আফজাল হোসেন ও ইমরান হোসেন বলেন, প্রথম তদন্ত কর্মকর্তা মোটা অঙ্কের অর্থের বিনিময়ে সঠিকভাবে তদন্ত না করে চলে যান। তাই আমরা ফের তদন্তের জন্য আবেদন করি।

 

প্রধান শিক্ষক জাহাঙ্গীর কবির তার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগের বিষয়ে স্বীকার করে বলেন, আমার শ্বশুর রাজাকার কিনা এটা আমি বলতে পারব না।

উপজেলা একাডেমিক সুপারভাইজার ফারুকুজ্জামান ডাকুয়া জানান, তদন্ত করতে এসে অত্র বিদ্যালয়ের সভাপতি উপস্থিত ছিলেন না। আগামী ২৩-১০ ২০২২ প্রেরিত চিঠি অনুযায়ী উপস্থিত থাকার কথা থাকলেও শুধুমাত্র বাদী পক্ষের কাগজপত্র দাখিল করেন ওই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সামান্য কিছু কাগজ দেখাতে পারলেও অত্র প্রতিষ্ঠানে সভাপতি অনুপস্থিত থাকায় তাদের কোন ধরনের সহযোগিতা পাইনি কিছু তদন্ত বাকি আছে। পূর্ণাঙ্গ তদন্ত করে বিস্তারিত জানা যাবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

পীরগাছায় নটাবাড়ী দ্বিমূখী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জাহাঙ্গীর কবিরের দুর্নীতির বিরুদ্ধে ফের তদন্ত

আপডেট সময় : ০৫:৫৭:৪৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ৩০ অক্টোবর ২০২২

মোঃ রফিকুল ইসলাম লাভলু,পীরগাছা (রংপুর) প্রতিনিধিঃ রংপুরের পীরগাছায় নটাবাড়ী দ্বিমূখী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জাহাঙ্গীর কবিরের দুর্নীতির বিরুদ্ধে ফের তদন্ত শুরু। রোববার দুপুরে উপজেলা একাডেমিক সুপারভাইজার ফারুকুজ্জামান ডাকুয়া ওই স্কুলে গিয়ে প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগের প্রেক্ষিতে তদন্ত শুরু করেন।

এ বিষয়ে গত ১৭ অক্টোবর অভিভাবক সদস্য আফজাল হোসেন প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে ওই স্কুলের তিনজন চুতর্থ শ্রেণির কর্মচারীর এমপিওভূক্ত স্থগিতকরণ এবং ইমরান হোসেন নামে একজন তার আপন শ্বশুর তালিকাভূক্ত রাজাকারকে বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি বানানো সংক্রান্ত রংপুর জেলা শিক্ষা অফিসার ও ইউএনও বরাবরে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। তাদের অভিযোগের ভিত্তিতে প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে রোববার ফের তদন্ত শুরু করেন উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস।

 

এর আগে নটাবাড়ী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের অনিয়মের তদন্তভার উপজেলা নির্বাহী অফিসার উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা আব্দুস ছালামকে দেন। তিনি অভিযোগকারী ও এলাকাবাসীর কোন বক্তব্য না নিয়ে প্রধান শিক্ষক ও তার লোকজনের বক্তব্য প্রতিবেদনে উল্লেখ করেছেন বলে জানান এলাকাবাসী।

 

অভিযোগকারী আফজাল হোসেন ও ইমরান হোসেন বলেন, প্রথম তদন্ত কর্মকর্তা মোটা অঙ্কের অর্থের বিনিময়ে সঠিকভাবে তদন্ত না করে চলে যান। তাই আমরা ফের তদন্তের জন্য আবেদন করি।

 

প্রধান শিক্ষক জাহাঙ্গীর কবির তার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগের বিষয়ে স্বীকার করে বলেন, আমার শ্বশুর রাজাকার কিনা এটা আমি বলতে পারব না।

উপজেলা একাডেমিক সুপারভাইজার ফারুকুজ্জামান ডাকুয়া জানান, তদন্ত করতে এসে অত্র বিদ্যালয়ের সভাপতি উপস্থিত ছিলেন না। আগামী ২৩-১০ ২০২২ প্রেরিত চিঠি অনুযায়ী উপস্থিত থাকার কথা থাকলেও শুধুমাত্র বাদী পক্ষের কাগজপত্র দাখিল করেন ওই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সামান্য কিছু কাগজ দেখাতে পারলেও অত্র প্রতিষ্ঠানে সভাপতি অনুপস্থিত থাকায় তাদের কোন ধরনের সহযোগিতা পাইনি কিছু তদন্ত বাকি আছে। পূর্ণাঙ্গ তদন্ত করে বিস্তারিত জানা যাবে।